জাতীয় মহিলা সংস্থা মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১০ জুলাই ২০১৮

অথনৈতিক ক্ষমতায়নে নারী উদ্যোক্তাদের বিকাশ সাধন প্রকল্প (৩য় পর্যায়):

বাংলাদেশের সুবিধাবঞ্চিত মহিলাদের অর্থনৈতিকভাবে সাবলম্বী করণ এবং রূপকল্প-২০২১ তথা ২০২১ সালের মধ্যে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশকে একটি মধ্যম আয়ের দেশ ও ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত দেশে রূপান্তর ও জ্ঞানভিত্তিক অর্থনীতি গড়ার জন্য নারীর ক্ষমতায়ন প্রয়োজন। নারীদের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি,আত্ম-নির্ভরশীলতা অর্জনে উদ্ধব্ধু ও সহায়তা প্রদানের পাশাপাশি নারী সমাজকে মানব সম্পদে পরিণত করার লক্ষ্যে অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে নারী উদ্যোক্তাদের বিকাশ সাধন প্রকল্প (৩য় পর্যায়) জুন ২০১৫ সাল থেকে কাজ করে যাচ্ছে। দেশের সুবধিাবঞ্চতি নারীদরে আর্থ ও সামাজিক ক্ষমতায়নের জন্য জুলাই ২০১৫ হতে জুন ২০২০ মেয়াদে ৮৮৩৬.৪৪ লক্ষ টাকা প্রাক্কলতি ব্যয়ে অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে নারী উদ্যোক্তাদের বিকাশ সাধন প্রকল্প (৩য় পর্যায়)র্শীষক প্রকল্পরে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

এই প্রকল্পের আওতায় ২৬টি জেলায় ৩০টি উপজেলায় ০৬টি ট্রেডে (বিজনেজ ম্যানেজমেন্ট, বিউটিফিকেশন, ফ্যাশন ডিজাইন, ক্যাটারিং, ইন্টারিয়র ডিজাইন এন্ড ইভেন ম্যানেজমেন্ট এবং বি এন্ড মাশরুম) বিষয়ে ৮২,৫০০ প্রশিক্ষণার্থীকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। ৩০শে জুন ২০১৮ সাল পযর্ন্ত  মোট ৫৩,৩৩২ জন সুবিধাবঞ্চিত বেকার নারীদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। প্রকল্পরে অধীন ২০১৮-১৯ র্অথ বছরে ২৩৭৯.০০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ আছে।

নারী উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য সামগ্রী বাজারজাত করার লক্ষ্যে সারা দেশে প্রশিক্ষণ কেন্দ্র সংলগ্ন ৩০টি বিক্রয় কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। প্রশিক্ষিত বেকার ও উদ্যোগী নারীদের জীবন জীবিকার অবস্থা পরিবর্তনের জন্য হাতে কলমে শিক্ষাকে কাজে লাগিয়ে আত্মর্কমসংস্থানের জন্য সারাদেশে ১০টি বিউটিপার্লার পর্যায়ক্রমে স্থাপন করা হবে, তম্মোধ্য ০৩ টি বিউটিপার্লার স্থাপন করা হয়েছে।


Share with :

Facebook Facebook